• ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ২৫শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯ সন্ধ্যা ০৭:১৪:২৬ (09-Dec-2022)
  • - ৩৩° সে:

লাগাম টানা যাচ্ছেনা নিত্যপণ্যের


শুক্রবার ১১ই নভেম্বর ২০২২ বিকাল ০৪:১৪



লাগাম টানা যাচ্ছেনা নিত্যপণ্যের

ছবি : সংগৃহীত

ঊর্ধ্বমুখী নিত্যপণ্যের বাজারে চাল, তেল, ডাল, আটা-ময়দার দামের লাগাম টানা যাচ্ছে না। দেখা দিয়েছে সরবরাহ সংকটও। দাম বৃদ্ধির যৌক্তিক কোনো কারণ জানেন না কেউই। তবে স্বস্তি রয়েছে কমতে থাকা সবজি ও মাছের দামে।

আবারও অস্থির চালের বাজার। শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাজধানীর কারওয়ানবাজারের বিক্রেতারা জানালেন, গত সপ্তাহে এক দফা বৃদ্ধির পর আবারও সব ধরনের চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা।

চাল বিক্রেতারা বলছেন, চালের দাম দিন দিন বেড়েই চলেছে কমার কোনো লক্ষণ নেই। সব মিলিয়ে ২-৩ টাকা বেশি বেড়েছে। মিনিকেট চাল যেখানে আমরা ৬৮-৭০ টাকা বিক্রি করতাম সেটা এখন ৭০-৭৪ টাকা করে বিক্রি করতে হচ্ছে।

ক্রেতারা বলছেন, আমাদের মতো মধ্যবিত্তদের জন্য এটা খুবই কষ্টকর। কেন দাম বাড়ছে এই তদারকি করা উচিত সরকারের।

এখনও কাটেনি চিনির শূন্যতা। এরমধ্যে আবার ভোক্তার কাঁধে দাম বৃদ্ধির চাপ বাড়াচ্ছে আটা-ময়দা, ডাল আর ভোজ্যতেল। দেখা দিয়েছে সরবরাহ সংকটও।

তেল বিক্রেতা বলেন, গত সপ্তাহে খোলা সয়াবিন তেল ছিল ১৬৮ টাকা, সেটা এখন আমরা ১৭০ টাকা বিক্রি করছি। আমি আজ সকাল বেলা তেল নিয়ে আসছি এখন সব বিক্রি হয়ে গেছে।

ডাল বিক্রেতা বলেন, দেশি ডাল বিক্রি করতাম ১২৫-১৩০ টাকায় এখন বিক্রি করতে হয় ১৩৫-১৪০ টাকা।

আটা বিক্রেতা বলেন, গত সপ্তাহে ২ কেজি আটার প্যাকেট ছিল ১৩০ টাকা এখন সেটা ১৪০ টাকা হয়েছে।

ক্রেতারা বলছেন, যেসব জিনিস আমাদের প্রতিনিয়ত লাগে সেগুলো যোগানই মার্কেটে ঠিকমতো নাই।

তবে, মাছ বাজারে স্বস্তির বারতা নিয়ে এসেছে ইলিশ। কেজি ওজনের প্রতিপিসে দেড়শো থেকে আড়াইশ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে সাড়ে ৯শ’ থেকে ১ হাজার টাকায়। কমতির দিকে অন্যান্য মাছের দামও। মাছ বিক্রেতারা বলেন, মাছ প্রচুর আসছে তাই মাছের দামও কমে গেছে। দেড় কেজি মাছ ছিল ১৫০০-১৬০০ এখন সেই মাছ ১২০০-১৩০০ টাকা। ইলিশ মাছের দাম এখন একটু সাধ্যের মধ্যে আছে বলে জানান তারা

সবজি বিক্রেতারাও জানালেন দাম কমতির খবর। তবে দাম আরও কমা দরকার বলে মনে করছেন ক্রেতারা। 

মন্তব্য করুনঃ


সর্বশেষ সংবাদ