• ঢাকা
  • |
  • বৃহঃস্পতিবার ২৩শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯ রাত ০১:৪৭:৪৫ (08-Dec-2022)
  • - ৩৩° সে:

কোনো প্রতিভা যাতে বাদ না পড়ে সেদিকে লক্ষ বাফুফের


রবিবার ১৩ই নভেম্বর ২০২২ দুপুর ১২:২২



কোনো প্রতিভা যাতে বাদ না পড়ে সেদিকে লক্ষ বাফুফের

ছবি : সংগৃহীত

তাড়াহুড়ার কারণে কোনো প্রতিভা যাতে বাদ না পড়ে, তাই বেশি সময় নিয়ে এবার একাডেমির জন্য ফুটবলার বাছাই করছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। একই সঙ্গে স্বচ্ছতার ক্ষেত্রে কঠোর অবস্থান ফেডারেশনের।

এলিট একাডেমির ফুটবলার নির্বাচন প্রক্রিয়া এবার বেশ দীর্ঘ। তাড়াহুড়ার জন্য অনেক সময় সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা সম্ভব হয় না প্রতিভা। তাই কেউ যাতে বাদ না পড়ে এই বিষয় মাথায় নিয়ে লম্বা সময় ধরে বাছাই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করছে ডেভলপমেন্ট কমিটি।

কমিটির চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ভূইয়া মানিক বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই প্রশিক্ষণ দিয়েছি। লম্বা সময় নিয়ে বাছাই প্রক্রিয়া চালাচ্ছি। সামনে অনূর্ধ্ব- ১৫ এবং অনূর্ধ্ব- ১৮ দলের যে টুর্নামেন্ট আছে, সেগুলোর জন্য এখান থেকে ভালো কিছু খেলোয়াড় পাওয়া যাবে বলে আশা করি।’  

দুটি বয়স লক্ষ্য করে জেলা পর্যায় থেকে এবার ১১৯ জন প্রতিভা সংগ্রহ করে বাফুফে। যাদের নিয়ে চলছে চূড়ান্ত বাছাই। বিভিন্ন পজিশনের সঙ্গে এই দলে আছে ২৯ জন গোলরক্ষক। বাছাইয়ে যাতে কোনো প্রকার স্বজনপ্রীতি না হয় তার জন্য কঠোর অবস্থানে সংশ্লিষ্টরা।

আতাউর রহমান ভূইয়া মানিক বলেন, ‘কারও অনুরোধে একজন খেলোয়াড়কেও এখানে নেয়া হয়নি। এমনটা করার কোনো সুযোগই রাখা হয়নি। বাছাইটা আমরা এমনভাবে করছি, যেখানে কারও কোনো আত্মীয়স্বজন বা কারও বন্ধুবান্ধব যেন এখানে আসতে না পারে, সে বিষয়টি সুক্ষ্মভাবে দেখা হচ্ছে।’

ফুটবলারদের একাডেমিক প্রক্রিয়া ভালোভাবে সম্পন্ন করতে উন্নত করা হচ্ছে প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা। ফিটনেস ট্রেইনার থেকে শুরু করে বিদেশ থেকে প্রশিক্ষক আনার বিষয়টিও চূড়ান্ত। আসছে ডিসেম্বরেই এলিট একাডেমিতে নতুন সেট আপ দেখা যাবে বলে আশা প্রকাশ করছেন ডেভলপমেন্ট কমিটি প্রধান।

তিনি বলেন, ‘আমরা বাইরের প্রশিক্ষক এবং কোচ নিয়ে আসবো। পর্যায়ক্রমে এগুলো করা হবে। আশা করি, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে এই প্রক্রিয়া শুরু করে দিতে পারব।’

কমলাপুর ছাড়াও আরও ছয়টি একাডেমির কার্যক্রম হাতে নিয়েছে বাফুফে। আসছে মাসে ডিপিপির অর্থ ছাড় হলে আলোর মুখ দেখবে সে পরিকল্পনা।

মন্তব্য করুনঃ


সর্বশেষ সংবাদ