• ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ২১শে মাঘ ১৪২৯ সকাল ০৬:০৮:৪৪ (03-Feb-2023)
  • - ৩৩° সে:

০৫:৫৫ পিএম, ২২ জানুয়ারী ২০২৩


ক্যাটাগরি

বাংলাদেশ
আওয়ামী লীগ
সারাদেশ

নিষেধাজ্ঞায় থাকা জাহাজ পাঠাবে রাশিয়া, আশা করেনি বাংলাদেশ


রবিবার ২২শে জানুয়ারী ২০২৩ বিকাল ০৫:৫৫



নিষেধাজ্ঞায় থাকা জাহাজ পাঠাবে রাশিয়া, আশা করেনি বাংলাদেশ

ছবি সংগৃহীত

চ্যানেল এস ডেস্ক : 

রাশিয়া জেনেশুনে নিষিদ্ধ জাহাজে পণ্য পাঠানোয় তাজ্জব পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। সংবাদিকদের এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন, আমাদের কাছে তাজ্জব লেগেছে যে রাশিয়া জেনেশুনে নিষেধাজ্ঞা আছে এমন জাহাজের নাম পরিবর্তন করে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের পণ্য পাঠিয়েছে। আমরা এটি আশা করিনি। 

রোববার (২২ জানুয়ারি) বিকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রাশিয়ার ৬৯টি জাহাজ যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে। এর বাইরে তাদের কয়েক হাজার জাহাজ আছে। 

আমরা আশা করি, নিষেধাজ্ঞা নেই এমন একটি জাহাজে রাশিয়া পণ্যগুলো পাঠাবে। সর্বোপরি নিষেধাজ্ঞা আছে এমন জাহাজ আমরা গ্রহণ করতে চাই না। আমরা এ বিষয়ে ওপরের লেভেলে কাজ করছি। 

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক সৃষ্টি হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন ড. এ কে আব্দুল মোমেন। 

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের পণ্য আসতে একটু দেরি তো হবেই। সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব হলো আমাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া এবং আশা করি সেটা হবে। এটা বাস্তবায়নের দায়িত্বে যারা আছেন, তারা বিষয়টা দেখবেন। 

এর আগে পহেলা জানুয়ারি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন, রুশ জাহাজ উরসা মেজরকে ভিড়তে না দেওয়ায় বাংলাদেশ-রাশিয়া সম্পর্কে কোনো প্রভাব ফেলবে না। ইতিমধ্যে বিষয়টির সমাধান হয়ে গেছে। বন্ধুরাষ্ট্রগুলো আমাদের যে বার্তা দিয়েছে, আমরা তার প্রতি সম্মান জানিয়েছি। এর সমাধানে খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি। রূপপুরের মতো মেগা প্রকল্প আমরা সময়মতো শেষ করতে চাই। এই প্রকল্পকে আমরা গুরুত্বও দিই। 

রাশিয়ার পতাকাবাহী জাহাজ উরসা মেজর রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের মালামাল নিয়ে গত ২৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশে পৌঁছানোর কথা ছিল। জাহাজটির উপর নিষেধাজ্ঞা থাকায় যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতার মুখে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

মন্তব্য করুনঃ


সর্বশেষ সংবাদ