• ঢাকা
  • |
  • মঙ্গলবার ১লা শ্রাবণ ১৪৩১ বিকাল ০৫:৪৪:০৭ (16-Jul-2024)
  • - ৩৩° সে:

শাই হোপের ব্যাটিং ঝড়ে উড়ে গেলো যুক্তরাষ্ট্র


শনিবার ২২শে জুন ২০২৪ দুপুর ০১:০৯



শাই হোপের ব্যাটিং ঝড়ে উড়ে গেলো যুক্তরাষ্ট্র

ছবি: সংগৃহীত

স্পোর্টস ডেস্ক: 

টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দুই স্বাগতিকের লড়াইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের এমন ছক্কা–বৃষ্টিতেই উড়ে গেল যুক্তরাষ্ট্র। বার্বাডোজে আজ আগে ব্যাট করতে নেমে ১২৮ রানে অলআউট হয় যুক্তরাষ্ট্র। ওয়েস্ট ইন্ডিজ মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে ৫৫ বল হাতে রেখেই লক্ষ্য টপকে গেল। 

এ জয়ে সেমিফাইনালে ওঠার দৌড়ে ভালোভাবেই টিকে রইল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর টানা দুই হারে যুক্তরাষ্ট্রের বিদায় প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেল। 

পাঁজরের চোটে ব্র্যান্ডন কিং ছিটকে না গেলে এই ম্যাচে হয়তো খেলাই হতো না শাই হোপের। সেই হোপ সুযোগের সদ্ব্যবহার কী দারুণভাবেই না করলেন! ওপেনিংয়ে নেমে একাই মারলেন ৮ ছক্কা। ৩ ছক্কা মেরে তাতে যোগ দিলেন নিকোলাস পুরান। 

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক রভমান পাওয়েল। প্রথমে ব্যাটিং পেয়ে ১৯.৫ ওভারে ১২৮ রানে অলআউট হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।  ইনিংস সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন আন্দ্রিস গাউস। ১৬ বলের ক্যামিও ইনিংসে ৩ চার ও ১ ছক্কা মেরেছেন যুক্তরাষ্ট্রের এই ওপেনার। রস্টন চেজ ও আন্দ্রে রাসেল নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। তবে কৃপণ বোলিংয়ের কারণে ম্যাচসেরা হয়েছেন চেজ। ৪ ওভারে খরচ করেছেন ১৯ রান। 

১২৯ রানের লক্ষ্যে প্রথম তিন ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ করেছে কোনো উইকেট না হারিয়ে ২৩ রান। ক্যারিবীয়দের রান তোলার গতি বাড়তে থাকে এখান থেকে। পাওয়ারপ্লেতে করেছে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৫৮ রান। যেখানে যুক্তরাষ্ট্রের পেসার শ্যাডলি ফন শ্যালকিকের ওভার থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিয়েছে ১৬ রান। শাই হোপ এই ওভারে ১টি করে চার ও ছক্কা মেরেছেন এবং ১টি চার মেরেছেন জনসন চার্লস।  

পাওয়ারপ্লে শেষ হতে না হতেই উইকেট হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সপ্তম ওভারের শেষ বলে হারমিত সিংকে তুলে মারতে যান চার্লস। লং অনে ক্যাচ ধরেন মিলিন্দ কুমার। ১৪ বলে ২ চারে করেন ১৫ রান। তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামেন নিকোলাস পুরান। পুরানকে এক পাশে দর্শক বানিয়ে তান্ডব চালিয়ে যান হোপ। 

নবম ওভারের শেষ তিন বলে মিলিন্দ কুমারকে পিটিয়ে ছক্কার হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন হোপ। ওয়েস্ট ইন্ডিজও দ্রুত জয়ের বন্দরে পৌঁছে গেছে। ১১তম  ওভারের পঞ্চম বলে সৌরভ নেত্রাভালকারকে ছক্কা মেরে তুলির শেষ আঁচড়টা দেন হোপ। ১০.৫ ওভারে ১ উইকেটে ১৩০ রান করে উইন্ডিজ। ৩৯ বলে ৮২ রান করে অপরাজিত থাকেন হোপ। ক্যারিবীয় ওপেনার মেরেছেন ৮ ছক্কা ও ৪ চার। 

ইংল্যান্ডের কাছে হেরে সেমিফাইনালে ওঠার পথে শুরুতেই হোঁচট খেয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেখান থেকে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়াল উইন্ডিজ। একই সঙ্গে দুশ্চিন্তা বেড়েছে ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকারও। 

গ্রুপ ‘টু’ তে সুপার এইটে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচের দুটিতে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তাতে ৪ পয়েন্টের পাশাপাশি নেট রানরেট ‍+০.৬২৫ নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে।  যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ৫৫ বল হাতে রেখে ৯ উইকেটের জয়ে গ্রুপে এখন দুইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২ পয়েন্টের সঙ্গে উইন্ডিজের নেট রানরেট ‍+১.৮১৪। তিনে থাকা ইংল্যান্ডেরও পয়েন্ট ২। বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের নেট রানরেট ‍+০.৪১২। সুপার এইটে ইংল্যান্ডের শেষ ম্যাচ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে আগামীকাল বার্বাডোজে। অ্যান্টিগায় পরশু বাংলাদেশ সময় সকালে মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-দক্ষিণ আফ্রিকা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতলে তো সুপার এইট নিশ্চিত। তখন নেট রানরেটের জটিলতায় পড়ে যাবে ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে। মার্কিনদের বিপক্ষে বড় জয়ের কোনো বিকল্প নেই ইংলিশদের। 

মন্তব্য করুনঃ


সর্বশেষ সংবাদ





















-->